মনোযোগ বাড়াতে পারে যে ১০টি অনুশীলন!

November 16, 2017 ...

পুরোটা পড়ার সময় নেই? ব্লগটি একবার শুনে নাও।

আমরা যেসব বিখ্যাত বডিবিল্ডারদের দেখি, তারা কেউই কিন্তু শুধু শুয়ে বসে এমন শক্তিশালী শরীর বানায়নি। এমন শরীর তৈরির পেছনে রয়েছে অনেক লম্বা সময় ধরে করা কঠোর অনুশীলন। তেমনি আমাদের মনোযোগকে শক্তিশালী করে তোলার জন্যেও রয়েছে কিছু অনুশীলনী যা আপনাকে বডিবিল্ডারদের মতই মানসিক ভারোত্তোলনে সাহায্য করবে।

১। শুরুটা ধীরে ধীরে করুন

ব্যায়ামবিদরা যদি শুরুতেই তাদের ১০০ কেজি ভারোত্তোলন করার চেষ্টা করতেন, কিংবা চলে যেতেন বড়সড় কোনো বক্সিং ম্যাচে, তাহলে তাঁদের এত দূর আসা তো দূরের কথা বরং তাঁরা শুরুতেই হাত-পা ভেঙ্গে বডিবিল্ডিং-এর আশা ছেড়ে দিতেন।

তাই বিশেষজ্ঞরা মনোযোগ বাড়ানোর জন্য শুরুতেই সহজ কিছু করতে বলেন, এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি উপযোগী হচ্ছে, পোমোডোরো মেথড। এই মেথডের মূলকথা হচ্ছে, ২৫ মিনিট এক নাগাড়ে কাজ করে ১৫ মিনিটের বিরতি নেয়া।

২। বানিয়ে নিন একটা “ডিস্ট্রাকশন টু ডু লিস্ট”

মুহাম্মদ জাফর ইকবাল স্যারের “বিজ্ঞানী সফদর আলীর মহা মহা আবিষ্কার” বইয়ে লেখা আছে যে, মানুষের দু’হাত যখন বাঁধা থাকে, তখন স্বভাবতই খুব করে নাকের সামনে চুলকানো শুরু করে। ঠিক সেইভাবেই মানুষ যখন জরুরি কোনো কাজ করতে থাকে, ঠিক তখনই তার মনে দুনিয়ার সবরকমের খেয়াল আসতে থাকে। যেমন, সামনে কোন মুভি আসছে, অমুকের বিয়েতে চুল কীভাবে বাঁধব, আরো কত কী! আর তখনই মানুষ ডুবে যায় সেসব চিন্তায়।

1 6

বিশেষজ্ঞরা বলেন যে, মানুষ কাজের মাঝে একবার অন্যমনস্ক হয়ে পড়লে, অন্তত ২৫ মিনিট লাগে তার পুনরায় মনোযোগ ফিরিয়ে আনতে। তাই কাজের ফাঁকে এমন কোনো খেয়াল আসলেই সাথে সাথে তা লিখে ফেলতে হবে “ডিস্ট্রাকশন টু ডু লিস্ট” এ। এরপর সেই লিস্টে টুকে নেয়া বিষয়গুলো নিয়ে অবসরে ইচ্ছামত চিন্তা করুন।

৩। ইচ্ছাশক্তিকে কাজে লাগান

কোনো কাজ শেষ করার জন্য কি আসলেই আপনার ইচ্ছা রয়েছে? তবে সেই কাজের প্রতি মনোযোগ ধরে রাখতেও কাজে লাগান সেই ইচ্ছা শক্তিকে। নিজেকে নিজে প্রমিস করুন যে, কাজ শেষ হবার আগ পর্যন্ত আর উঠছেন না আপনি।

৪। মেডিটেশন করুন

মেডিটেশন শুধুমাত্র আপনাকে শান্ত হতেই সাহায্য করে না বরং তা আপনার মনোযোগকেও ধরে রাখে। গবেষণাকার্যে একবার ১৪০ জন স্বেচ্ছাসেবীকে ৮ সপ্তাহ ধরে মেডিটেশন করানো হয়। ৮ সপ্তাহ পরে, সেই ১৪০ স্বেচ্ছাসেবীর মনোযোগে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন দেখা যায়। মেডিটেশনের পেছনে অনেক সময় যে ব্যয় করতে হবে, তা কিন্তু নয়। বরং সকালে উঠে ১০-২০ মিনিট শান্ত হয়ে বসে, সব চিন্তা ঝেড়ে ফেলে, নিজের শ্বাস-প্রশ্বাসের উপর মনোযোগ দিলেও হবে।

৫। সব কাজে মনোযোগ দিন

সকালে ১০-২০ মিনিট যে হালকা মেডিটেশন করলেন, সারাদিন তা ধরে রাখুন। যেকোনো কাজ খুব মনোযোগ দিয়ে করুন। খাওয়ার সময় খাবারের রঙ, স্বাদ সবকিছু পর্যবেক্ষণ করুন। মুভি দেখার সময় নায়কের হাত কীভাবে নাড়াচ্ছে, কথা বলার সময় চোয়াল কীভাবে নাড়াচ্ছে, সব খেয়াল করুন; যেমনটা চায়ের বিজ্ঞাপনে দেখায় আর কি!

৬। প্রতিদিনের রুটিনে শরীরচর্চা রাখুন

গবেষণায় দেখা গেছে, একই রকম মেধা সম্পন্ন হওয়া সত্ত্বেও, সারাদিন শুয়ে বসে কাটানো শিক্ষার্থীদের তুলনায় যারা শারীরিক পরিশ্রম করে, তাদের পরীক্ষায় ফলাফল ভাল হয়।

৭। বিভিন্ন জিনিষ মুখস্থ রাখুন

কোনো লেখা মুখস্থ করতে গেলেও অনেক মনোযোগের দরকার হয়। তাই প্রতি সপ্তাহে অন্তত একটা কবিতা মুখস্থ করার লক্ষ্য স্থির করুন।

৮। বড় লেখাগুলো ধীরে ধীরে পড়ুন

প্রযুক্তির কল্যাণে, আমরা এখন বেশিরভাগ লেখাই মোবাইলের স্ক্রিনে পড়ি এবং আমাদের একটা বাজে স্বভাব হচ্ছে, কিছু পড়ার সময় অনেক কিছু স্কিপ করে যাওয়া। অথচ, বড় বড় লেখাগুলো আমরা যখন আস্তে আস্তে করে সময় নিয়ে পড়ি, তখন তা আমাদের মনোযোগ বৃদ্ধিতে অনেক উপকার করে।

৯। ভাল শ্রোতা হোন

তখনই বুঝবেন আপনি আসলেই আপনার মনোযোগকে স্থির করতে সক্ষম হয়েছেন যখন কেউ কিছু বলতে বলতে থেমে গিয়ে সে কী বলছিলো প্রশ্ন করার পর আপনি সঠিক উত্তর দিতে পারবেন (যা আমরা বেশিরভাগ সময়ই পারি না)। এইজন্য শ্রবণশক্তিকে সমৃদ্ধ করুন। শ্রুতিলেখার অনুশীলন করুন।

১০। মনোযোগ বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় গেইম খেলুন

গুগলে খুঁজলে আপনি অসংখ্য গেমস পাবেন যা তৈরিই হয়েছে আপনার মনোযোগ বৃদ্ধি করার উদ্দেশ্য। প্রতি সপ্তাহে, তার থেকে, অন্তত একটা করে খেলুন।

2 4

বর্তমান যুগটাই এমন যে, কোনো কাজ করতে গিয়ে আপনি একটু অমনোযোগী হওয়া মানেই, অন্য কেউ আপনার চেয়ে অনেক এগিয়ে গেল। তাই যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে, এই মনোযোগ বৃদ্ধির অনুশীলনী শুরু করতে হবে আজ থেকেই!


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: write@10minuteschool.com

আপনার কমেন্ট লিখুন