মেডিটেশনের ৬টি উপকারিতা যা বদলে দেবে তোমার ছাত্রজীবন

Mufassal Saif is a Day Dreamer & a Night Thinker. Though he fails in most of his attempts, he tries to do something new everyday. Saif is a huge follower of FC Barcelona & Leo Messi.

পুরোটা পড়ার সময় নেই ? ব্লগটি একবার শুনে নাও !

আমাদের দেহকে সুস্থ রাখার জন্যে আমরা অনেকেই অনেক কিছু করি। কেউ সকালে হাঁটি, ব্যায়াম করি, স্বাস্থ্যকর খাবার খাই ইত্যাদি। কিন্তু ছাত্রজীবনে উন্নতি সাধন করার জন্য দেহকে সুস্থ রাখার পাশাপাশি আমাদের মনকেও সুস্থ রাখা প্রয়োজন; যে কাজটা আমরা খুব সহজেই করতে পারি মেডিটেশনের মাধ্যমে।

মেডিটেশন হলো এমন এক অবস্থা যখন আমাদের মস্তিষ্ক অপ্রয়োজনীয় সবকিছু থেকে নিজেকে আলাদা করে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে নিমগ্ন হয় এবং মস্তিষ্কের ক্ষমতাকে সবচেয়ে বেশি পরিমাণে ও নিখুঁতভাবে ব্যবহার করতে শেখে। বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তিদের থেকে শুরু করে নোবেল বিজয়ী, বিজ্ঞানী বা লেখকদের অনেকের মধ্যেই একটি অভ্যাস খুবই কমন আর তা হলো মেডিটেশন।

life hacks, meditation, student life

পড়াশোনার পাশাপাশি দৈনিক ১০-১৫ মিনিট মেডিটেশন ছাত্রজীবনে তোমার মানসিক সুস্থতা রক্ষা ও বুদ্ধির বিকাশে অনেক ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। ছাত্রজীবনে মেডিটেশনের ৬ টি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব হলো:

১. IQ লেভেল বৃদ্ধি

আমরা সবাই কিন্তু নিজেকে একটু আধটু স্মার্ট ভাবতে পছন্দ করি। এখন যদি বলি এমন একটা জিনিস আছে যা আমাদের IQ লেভেল আসলেই বাড়িয়ে দিতে পারে তাহলে নিশ্চয়ই অবাক হবে!

গবেষকদের মতে মেডিটেশন আসলেই আমাদের IQ লেভেল বাড়িয়ে দিতে পারে। ২০১১ সালে হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে করা এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ৮ সপ্তাহ বা তার বেশি মেডিটেশনের ফলে আমাদের মস্তিষ্কের “LEFT HIPPOCAMPUS, “POSTERIOR CINGULATE CORTEX” এবং “TEMPORO PARIETAL JUNCTION” অংশ আয়তনে বৃদ্ধি লাভ করে। এতে আমাদের স্মৃতিশক্তি, চিন্তাশক্তি ও নতুন কিছু শেখার ক্ষমতা অনেকাংশে বৃদ্ধি পায়।

২. একাডেমিক পড়াশোনার ধকল থেকে মুক্তি

সারাদিন ক্লাস, প্রাইভেট আর হোমওয়ার্কের চাপে আমরা অনেকেই কিন্তু দিশেহারা হয়ে যাই। একাডেমিক পড়াশোনার এই ধকল দূর করার অনেক ভালো একটি উপায় হলো মেডিটেশন। মেডিটেশনের ফলে  আমাদের মস্তিষ্কের “AMYGDALA” অংশের cell volume হ্রাস পায় যার ফলে আমাদের ভয়, উদ্বেগ ও ধকল হ্রাস পায়। এছাড়াও মেডিটেশন আমাদের মস্তিষ্কে আলফা ওয়েভের নিঃসরণ বৃদ্ধি করে যা দুশ্চিন্তা, দুঃখ ও রাগের মত অনুভূতিগুলো কমিয়ে আনতে সাহায্য করে।

৩. মনোযোগ বৃদ্ধি

পড়ার টেবিলে মনযোগ স্থির রাখা আমাদের সবার জন্যই কিছুটা কঠিন। বিশেষত, পরীক্ষার দিনগুলোতে একটি বিষয়ের উপর দীর্ঘক্ষণ মনোযোগ ধরে রাখা সত্যিকার অর্থেই কষ্টসাধ্য ব্যাপার। তবে এই কষ্টসাধ্য ব্যাপারটাকে তোমার জন্য কিছুটা সহজ করে দিতে পারে মেডিটেশন। পরীক্ষার দিনগুলোতে দৈনিক কিছুক্ষণ মেডিটেশন তোমার মনোযোগ ৫০% পর্যন্ত বৃদ্ধি করতে পারে।

মেডিটেশন তোমার চিন্তাশক্তিকে একটি বিষয়ে কেন্দ্রীভূত করতে শেখাবে, যার ফলে তোমার যেকোন একটি বিষয়ে গভীরভাবে চিন্তা করার ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে এবং পড়ার সময় অন্য সব চিন্তা মস্তিষ্ক থেকে দূরে থাকবে

৪. খারাপ অভ্যাসগুলো ত্যাগে সহায়ক

ছাত্রজীবনের কিছু অভ্যাস আছে যেগুলো আমরা খারাপ জেনেও সহজে ত্যাগ করতে পারি না। এর কারণ যথেষ্ট ইচ্ছাশক্তি ও আত্মনিয়ন্ত্রণের অভাব; যার জন্য দায়ী মস্তিষ্কের সম্মুখ অংশের “DORSOLATERAL PREFRONTAL CORTEX (dlPFC)। মেডিটেশন dlPFC কে প্রভাবিত করে যার ফলে আমাদের আত্মনিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি পায় এবং বাজে অভ্যাসগুলো আমরা সহজে ত্যাগ করতে পারি।

৫. শারীরিক সুস্থতা

সঠিকভাবে জ্ঞান অর্জন ও পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের অন্যতম পূর্বশর্ত হলো শারীরিক সুস্থতা। তুমি যতই ভালোভাবে প্রস্তুতি নাও না কেন, শারীরিকভাবে সুস্থ না থাকলে তুমি কখনোই পরীক্ষায় তোমার ১০০% দিতে পারবে না। মেডিটেশন আমাদের মানসিকভাবে সুস্থ রাখার পাশাপাশি আমাদের শারীরিকভাবে সুস্থ থাকতেও সাহায্য করে। মেডিটেশন আমাদের দেহে C-Reactive Protein এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে যার ফলে আমাদের হৃদরোগের ঝুঁকি অনেকাংশে হ্রাস পায়।

মেডিটেশন একজন ছাত্রের বিষণ্ণতায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি ৩১% কমিয়ে দেয়

মাত্র ৩ মাস নিয়মিত মেডিটেশন উচ্চ-রক্তচাপের ঝুঁকি প্রায় ৫২% কমিয়ে আনে। নিয়মিত মেডিটেশন তোমার ক্লান্তি ও অবসন্নতা দূর করবে, যার ফলে তুমি পুরো উদ্যমে পড়াশোনা ও অন্যান্য কাজ একই তালে চালিয়ে যেতে পারবে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, নিয়মিত মেডিটেশন করার অভ্যাসধারীদের দেহে এন্টিবডির পরিমাণ তথা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সাধারন মানুষের তুলনায় বেশি থাকে।

৬. Depression কে বিদায়, এবার আনন্দের পালা!

যুক্তরাষ্ট্রের Emory University এর করা এক জরিপে প্রতি ৩ জন শিক্ষার্থীর একজন ছাত্রজীবনে কোন না কোন সময় Depression বা বিষণ্ণতায় ভোগে। পড়াশোনায় চাপ, খারাপ রেজাল্ট বা বন্ধুদের সাথে দ্বন্দ্ব; যে কারণেই হোক না কেন- বিষণ্ণতা আমাদের দেহ ও মন উভয়ের জন্যই খুবই ক্ষতিকর। এমনকি প্রতিবছর ১০০০ এর বেশি ছাত্র শুধুমাত্র বিষণ্ণতার কারণেই আত্মহত্যা করে!

বিষণ্ণতা কাটিয়ে ওঠার অন্যতম সেরা উপায় হলো মেডিটেশন। অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির Professor Willem Kuyken এর মতে, একজন বিষণ্ণতায় আক্রান্ত মানুষের ক্ষেত্রে মেডিটেশন অনেকটা Anti-Depression ওষুধের মত কাজ করে। এছাড়াও মেডিটেশন একজন ছাত্রের বিষণ্ণতায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি ৩১% কমিয়ে দেয়।

life hacks, meditation, student life

এখন হয়তো অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছে মেডিটেশন আসলে কীভাবে করতে হয়! চিন্তার কোন কারণ নেই, গুগল এবং ইউটিউবে মেডিটেশনের উপর হাজারো ভিডিও ও আর্টিকেল খুঁজে পাবে বাংলা এবং ইংরেজি দুই ভাষাতেই। সুতরাং, তোমার ছাত্রজীবনকে আরও সুন্দর ও পূর্ণাঙ্গভাবে গড়ে তোলার জন্য শুরু করে দিতে পারো মেডিটেশন, যার সুফলগুলো পড়াশোনার সাফল্যের দিকে তোমাকে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে।


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: [email protected]

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?

GET IN TOUCH

10 Minute School is the largest online educational platform in Bangladesh. Through our website, app and social media, more than 1.5 million students are accessing quality education each day to accelerate their learning.