টোফেল লিখিত পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জনের সহজ কৌশল

পুরোটা পড়ার সময় নেই? ব্লগটি একবার শুনে নাও।

ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা অর্জনের জন্য ‘টেস্ট অফ ইংলিশ এস এ ফরেন ল্যাংগুয়েজ’ বা টোফেল (TOFEL) অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। টোফেলে তিনটি ধাপে আপনার ইংরেজির উপর দক্ষতা পরীক্ষা করে দেখা হবে। প্রথমত, লিসেনিং অথবা ইংরেজি ভাষা শোনার  দক্ষতা, দ্বিতীয়ত, স্পিকিং অর্থাৎ আপনাকে ইংরেজি বলার দক্ষতা এবং তৃতীয়ত রাইটিং অর্থাৎ ব্যাকরণগতভাবে সঠিক উপায়ে ইংরেজি লেখার দক্ষতা যাচাই করা হয়।

টোফেলের এই শেষ ধাপটি বাকি দু’টি ধাপ এর চেয়ে অনেক বেশি কঠিন। কিন্তু কিছু সহজ নিয়ম মেনে চললে টোফেলের লিখিত পরীক্ষায় আপনিও ভালো ফলাফল অর্জন করতে পারবেন। জেনে নিতে পারেন যে টি সহজ উপায়ে টোফেল এর ইংরেজি লিখিত পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করতে পারবেন।

 ‎১.শব্দান্তর করে অর্থ বের করা

টোফেলে ভালো ফলাফল অর্জন করতে হলে,অবশ্যই প্যারাগ্রাফের শব্দান্তর করতে হবে। অর্থাৎ নিজের মতো করে শব্দের বিভিন্ন অর্থগুলো জানতে হবে। প্রতিটি শব্দের হুবহু অর্থ জেনে আপনি  কখনোই টোফেলে ভালো ফলাফল করতে পারবেন না।

কারণ শব্দের হুবহু অর্থ ব্যবহারে আপনার অসংখ্য পয়েন্ট ‘Plagiarism’ বা কপি করার দায়ে পড়ে যাবে। আর তাই প্রতিটি শব্দের শব্দান্তর করে লিখার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

 ‎২.  লিখিত পরীক্ষার জন্য আগে থেকেই লিখার অভ্যাস গড়ে তুলুন

 ‎অনেকেরই টোফেল লিখিত পরীক্ষা খারাপ হওয়ার পেছনের কারণ হচ্ছে, তারা আগে থেকে লেখার অভ্যাস গড়ে তুলছে না। আপনি যদি পরীক্ষার আগেই স্বাধীনভাবে লেখার চর্চা করে যান তাহলে আপনার পরীক্ষার কেন্দ্রে এই অভ্যাস খুব কাজে লাগবে। আর লেখার এই চর্চাটিকে আপনি দুই ভাগে ভাগ করতে পারেন।

প্রথমত, আপনি যা স্বাধীনভাবে চিন্তা করবেন তা লিখে ফেলবেন। দ্বিতীয়ত, আপনার লেখাগুলো এবার আপনি সুন্দরভাবে সাজিয়ে লিখবেন।পূর্বেই লেখার এই নিয়মিত চর্চা আপনার লিখিত পরীক্ষায় ভালো ফলাফল নিয়ে আসবে।

টোফেল লিখিত পরীক্ষায় স্বাধীনভাবে লিখার অন্যতম উপায় হলো, লেকচারের দিকে মনোযোগী হওয়া। লেকচার চলাকালীন সময়ে যা বলা হবে, তা পয়েন্ট আকারে লিখে ফেলুন। এরপর সেই নোটগুলোর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোর দিকে খেয়াল রাখুন।

৩. ভালোভাবে নোট করার অভ্যাস গড়ে তুলুন

টোফেল লিখিত পরীক্ষার জন্য লেকচার চলাকালীন সময়ে সুন্দর করে নোট করার অভ্যাসটি লিখিত পরীক্ষার পূর্বে বেশ কাজে লাগবে। আর তাই সুন্দর করে গুছিয়ে নোট করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। এছাড়াও নোট করার এই অভ্যাসটি লেকচারের প্রতি মনোযোগ বাড়াতে সহায়তা করবে। এছাড়াও নিয়মিত এই নোট করার অভ্যাসটি যেকোন বিষয়ের উপর নিজ ইচ্ছেমতো লিখার একটি অভ্যাস গড়ে তুলবে। আর তাই চেষ্টা করবেন লেকচার চলাকালীন সময়ে ভালভাবে নোট করার অভ্যাসটি গড়ে তুলতে।

 
 
 

৪. বানান সঠিক রাখতে হবে

টোফেল লিখিত পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জনের জন্য শব্দের বানানের দিকে মনোযোগী হতে হবে। আপনার একটি ভুল বানান আপনার পুরো ফলাফলকে পাল্টে দিতে পারে। আর তাই বানানের দিকে মনোযোগী হতে হবে। সতর্ক থাকতে হবে সেই সকল শব্দের বানান নিয়ে, যেগুলোর কাছাকাছি অনেক ধরনের শব্দ রয়েছে। সেই শব্দগুলোর বানান বারবার চর্চা করতে হবে।

একটি বাক্যের পুরো অর্থই পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে, যদি আপনি কাছাকাছি বানানের কোনো শব্দ ব্যবহার করেন। আর তাই অত্যন্ত সতর্কতার সাথে একই রকম শব্দের বানানগুলো চর্চা করতে হবে। যদি কোন শব্দের বানান না জানেন, তবে কাছাকাছি অন্য কোন শব্দ ব্যবহার করুন। তবে ভুলেও শব্দের বানান ভুল করবেন না।

৫. ব্যাকরণ ঠিক রাখুন

টোফেল লিখিত পরীক্ষায় অবশ্যই আপনাকে ব্যাকরণের দিকে মনোযোগী হতে হবে। ভুলভাল ব্যাকরণ ব্যবহার পরিত্যাগ করুন। ব্যাকরণের সঠিক নিয়ম গুলো নিয়মিত চর্চা করুন। এবং বাক্য গঠনের ক্ষেত্রে সঠিক ভাবে সঠিক ব্যাকরণ প্রয়োগ করুন। ব্যাকরণের সঠিক প্রয়োগের অভ্যাস গড়ে তুলা খুব জরুরী।

 

একটি বাক্য গঠনের বিভিন্ন ধরনের নিয়ম থাকে।  টোফেল লিখিত পরীক্ষায় নাম্বার প্রদানকারীরা দেখতে চান, আপনি আসলে বাক্য গঠনের কতগুলো নিয়ম জানেন। আর তাই বাক্য গঠনের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন এবং বিভিন্ন ভাবে ব্যাকরণ ব্যবহার করে বাক্য গঠন করুন।

টোফেল এর লিখিত পরীক্ষা যতই কঠিন হোক না কেন আপনার লেখার প্রতি নিয়মিত চর্চা সেইসাথে নতুন নতুন শব্দের অর্থ এবং বানান শেখার প্রতি মনোযোগ বাড়াতে হবে। এছাড়াও ব্যাকরণের উপর দিতে হবে বিশেষ জোর।একটি বাক্যকে বিভিন্ন উপায় লেখার চর্চা গড়ে তুলতে হবে।

এছাড়াও প্রতিদিন রুটিন করে নতুন শব্দ নতুন নতুন শব্দ এবং নতুন নতুন শব্দের বানান শেখার নিয়মিত চর্চা নিঃসন্দেহে আপনাকে ভালো ফলাফল এনে দেবে। এছাড়াও টোফেল এর লিখিত পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের ক্ষেত্রে সংকল্পবদ্ধ হয়ে লেখার নিয়মিত চর্চা ভালো ইংরেজি মুভি অথবা নিয়মিতভাবে ইংরেজি পত্রিকা পড়ে যেতে হবে। প্রতিদিন নিয়ম করে ইংরেজি পত্রিকা পড়ার চর্চাটি আপনাকে নতুন নতুন শব্দ শেখা এবং সেই সকল শব্দের বানান শেখার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে।

এছাড়াও সংবাদপত্রের বিভিন্ন ধরনের বাক্য নিয়ে  ভাবতে হবে। এতে করে একটি বাক্যকে কত রকম নিয়মে লেখা যায়সে বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। আর তাই টোফেল লিখিত পরীক্ষা নিয়ে কোনরকম দুশ্চিন্তা না করে আজ থেকেই নিয়মিত চর্চা শুরু করুন।

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
Author
Nusrat Jahan
এই লেখকের অন্যান্য লেখাগুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন
What are you thinking?