১০ মিনিট ব্যায়াম: এবার সৃজনশীল হবে তুমিও!

Tanjim is a passionate part time writer and a full time optimist.

পুরোটা পড়ার সময় নেই ? ব্লগটি একবার শুনে নাও !

একটি প্রচলিত ধারণা হচ্ছে যে সৃজনশীলতা মানুষ জন্মসূত্রে লাভ করে। আমাদের আশেপাশের অনেকে অনেক দিক থেকে সৃজনশীল। কেউ গান গাইতে পারে, কেউ নাচতে পারে, কেউ লিখতে পারে, কেউ ছবি আঁকতে পারে। সকল ক্ষেত্রেই আমরা বলি যে এই ক্ষমতা ঈশ্বর প্রদত্ত।

কিন্তু অন্য সব দক্ষতার মতই সৃজনশীলতাও চর্চার মাধ্যমে গড়ে তোলা সম্ভব। প্রকৃতপক্ষে চর্চা না করলে সৃজনশীলতার বিকাশ কখনোই ঘটে না। তোমাদের মাঝে কেউ যদি চিন্তা করে থাকো, “আমার মাঝে সৃজনশীলতা নেই”, তাহলে সেই চিন্তা এই মুহূর্তে ঝেড়ে ফেলো। আজকে আমি এমন এক ব্যায়ামের কথা বলবো, যা নিয়মিত করলে ধীরে ধীরে তোমার সৃজনশীলতা বাড়তে থাকবে।

তবে একবিংশ শতাব্দীর মানুষ প্রচণ্ড ব্যস্ত। সৃজনশীলতা বৃদ্ধির জন্য নিয়মিত চর্চা করা বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। এত ব্যস্ততার মাঝেও এই ব্যায়ামটি করা সম্ভব। কারণ, ব্যায়ামটি করতে ১০ মিনিটের বেশি সময়ের প্রয়োজন নেই। এই মানসিক ব্যায়ামের নাম একজন মানুষ এবং একটি কুকুরের গল্প। ব্যায়ামটি কীভাবে কাজ করে তা নিচে ব্যাখ্যা করা হল:

১। মনে করো একজন মানুষ এবং একটি কুকুর রয়েছে:

তাদের মধ্যকার সম্পর্কটির কথা চিন্তা করো। কুকুরটি কোথা থেকে এসেছে? মানুষটির কাছে কুকুরটি কতদিন ধরে আছে?  কুকুরটি কোন জাতের? কুকুরটি কি মানুষটির পোষা কুকুর? মানুষটি কি কুকুরটিকে পার্কে হাঁটাচ্ছে?

প্রত্যেকের জীবনের পেছনে মজাদার এবং বৈচিত্র্যময় গল্প বের করার চেষ্টা করো।

২। তোমার চিন্তাশক্তিকে কাজে লাগাও, আরো সম্ভাব্য কারণের কথা ভাবতে থাকো:

যেমন, মানুষটি হয়তো কুকুরটিকে কোথাও অসুস্থ অবস্থায় পেয়েছিল। কিন্তু কুকুরটি কীভাবে অসুস্থ হলো?

বিচিত্র কল্পনা করা থেকে বিরত থেকো না, তোমার মনকে মুক্ত করে দাও। হয়তো মানুষটি এবং তার কুকুর পৃথিবীর সর্বশেষ জীবিত প্রাণী, হয়তো কুকুরটি মানুষটির থেকে অধিক শক্তিশালী এবং বুদ্ধিমান। এভাবে পর্যায়ক্রমে আরও নতুন নতুন বৈশিষ্ট্য যোগ করতে থাকো।

৩। কল্পনার বৈচিত্র্য বৃদ্ধি করতে থাকো:

হয়তো মানুষটি একজন বিজ্ঞানী এবং তিনি তার কুকুরকে মঙ্গল গ্রহে পাঠানোর পরিকল্পনা করছেন এটি দেখতে যে কুকুরটি সেখানে বেঁচে থাকতে পারে কি না।

মানুষ এবং কুকুরের সম্পর্কে বৈচিত্র্য বৃদ্ধি করার মাধ্যমে তুমি নিজেও তোমার স্বাভাবিক চিন্তাধারার থেকে ব্যতিক্রমীভাবে চিন্তাভাবনা করতে উদ্বুদ্ধ হবে। ফলশ্রুতিতে, সৃজনশীল চিন্তা করার মানসিক সক্ষমতা গড়ে তুলতে পারবে।

ব্যায়ামটি সবসময় মানুষ এবং কুকুর নিয়ে হতে হবে, এমন কোন কথা নেই। আরও বিবিধ ধরণের সম্পর্ক নিয়ে তুমি ব্যায়ামটি করতে পারো। যেমন:             

    • শিক্ষক এবং ছাত্র

 

    • পুলিশ এবং অপরাধী

 

    • মাকড়শা এবং বৃদ্ধ ব্যক্তি

 

    • উল্কিসহ একটি মেয়ে

 

  • ধনী ব্যক্তি এবং রাস্তার ফকির

প্রকৃতপক্ষে দুইজন মানুষের মাঝে যেকোন ধরণের সম্পর্কই এই ব্যায়ামের জন্য উপযুক্ত।

শুধু কাল্পনিক পটভূমিতে এই ব্যায়াম না করে আসল পৃথিবীতেও এই ব্যায়ামটি করা সম্ভব। বাসে ভ্রমণ করার সময় অথবা রাস্তায় হাঁটার সময় অথবা বাসার বারান্দায় দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে মানুষকে পর্যবেক্ষণ করো। তারা কী ধরণের জীবনযাপন করে, তা কল্পনা করার চেষ্টা করো। প্রত্যেকের জীবনের পেছনে মজাদার এবং বৈচিত্র্যময় গল্প বের করার চেষ্টা করো। এটি সৃজনশীলতাকে বৃদ্ধি করে এবং নির্মল বিনোদন দেয়।

Studies show that looking at the colour green can enhance your creativity.

ধীরে ধীরে তোমার মন সৃজনশীলভাবে চিন্তা করার জন্য উপযোগী হয়ে উঠবে এবং তুমি স্বাভাবিকভাবেই তোমার মস্তিষ্কের সৃষ্টিশীল অংশ ব্যবহারে দক্ষ হয়ে উঠবে।

তাই, দেরি না করে আজকে থেকেই নিয়মিত শুরু করে দাও দশ মিনিটের এই ব্যায়াম!  


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: [email protected]

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?

GET IN TOUCH

10 Minute School is the largest online educational platform in Bangladesh. Through our website, app and social media, more than 1.5 million students are accessing quality education each day to accelerate their learning.