বিবিধ, বিজ্ঞান

বিজি লাইফকে ইজি করতে গুগল:পর্ব ৪

পুরোটা পড়ার সময় নেই? ব্লগটি একবারে শুনে নাও!

 

মহাকাশ ও সৌরজগৎ অনুসন্ধানে গুগল:

গুগল স্কাই

গুগলের অনেক সেবার সাথেই আমরা পরিচিত। গুগলের অ্যাপসগুলো আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে সহজ করে তুলেছে। নতুন করে মহাকাশপ্রেমীদের জন্য গুগল নিয়ে এল গুগল স্কাই অ্যাপ। মহাকাশের অসীমতায় হারিয়ে যেতে টেলিস্কোপ-এর বিকল্প হবে এই অ্যাপটি। গুগল স্কাই মানচিত্রে নক্ষত্রপুঞ্জ, ছায়াপথ, গ্রহ এবং পৃথিবীর চাঁদ সহ বিভিন্ন মহাজাগতিক বস্তু দেখা যাবে।

গুগল স্কাই মানচিত্র ব্যবহার করে বিভিন্ন মহাজাগতিক বস্তু এবং জায়গা অনুসন্ধান করার জন্য সার্চ অপশনে গিয়ে শব্দটি লিখে সার্চ বাটনে ক্লিক করতে হবে। উদাহরণ:

  • Crab Nebula
  • Orion
  • NCG 2437

মহাজাগতিক বস্তুকে নেভিগেট করার জন্য গুগল স্কাই মানচিত্র দুই মাত্রার মধ্যে নেভিগেট অপশন আছে।

  • দেখার জন্য ক্লিক করুন এবং টেনে দেখুন
  • উত্তরে সরানোর জন্য আপনার কীবোর্ডের উপরের তীর চাপুন
  • দক্ষিণ সরানোর জন্য আপনার কীবোর্ডের নিম্নমুখী তীর চাপুন
  • পূর্ব সরানোর জন্য আপনার কীবোর্ড উপর ডান তীর চাপুন
  • পশ্চিম সরানোর জন্য আপনার কীবোর্ডের বাম তীর চাপুন
দারুণ সব লেখা পড়তে ও নানা বিষয় সম্পর্কে জানতে ঘুরে এসো আমাদের ব্লগের নতুন পেইজ থেকে!

গুগল স্কাই মানচিত্রে পৃষ্ঠার উপরের ডান দিকের কোনায় অবস্থিত উপযুক্ত ট্যাবে ক্লিক করে নির্দিষ্ট মতামতে ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া পৃষ্ঠার নিচের অংশে প্রদর্শিত থাম্বনেলে ক্লিক করে আকর্ষণীয় সংগ্রহের কল্পচিত্র নেভিগেট করতে পারেন।

গুগল আর্থ

গুগল আর্থ গুগলের অন্যতম জনপ্রিয় একটি সেবা। যে কেউ বিনামূল্যে এই সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন। এটি ব্যবহার করে স্যাটেলাইট থেকে তোলা সম্পূর্ণ পৃথিবীর ছবি দেখা যায়। ঠিকানা লিখে খুঁজে বের করা যায় পৃথিবীর যে কোন স্থানের ছবি। নিয়মিত এই ছবিগুলি আপডেট করা ছাড়াও সফটওয়্যারটিতে যুক্ত করা হচ্ছে নতুন নতুন সুবিধা।

যেমন একেবারে প্রথমে এটিতে শুধু স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবি দেখা যেত। পরবর্তীতে যুক্ত করা হয় বিশেষ বিশেষ স্থানের ত্রিমাত্রিক মডেল। এর পরপরই চালু করা হয় স্ট্রীট ভিউ সুবিধাটি। যেখানে বিভিন্ন এলাকার ছবি যুক্ত করা হয়। বড় ধরনের এই পরিবর্তন ছাড়াও ছোট ছোট বিভিন্ন ধরনের সুবিধা যুক্ত করা হচ্ছে নিয়মিতভাবে। ট্যুর গাইড-এর মাধ্যমে পাওয়া যাবে যেকোন পর্যটন স্থানের ছবি ও তথ্য।

গুগল মুন

পৃথিবীর পাশাপাশি চাঁদের বিভিন্ন অঞ্চল ও ঘুরে দেখার ব্যবস্থা রেখেছে গুগল। গুগল মুন থেকে আপনি চাঁদের অনেকটা ঘুরে দেখতে পারেন। আর সাথে পড়তে পারেন চাঁদে এখনো পর্যন্ত পাঠানো সকল নভোচারী ও নভোযানের উপর খুঁটিনাটি তথ্য। এমনকি আ্যপলো ১১-এর নভোচারী নীল আর্মস্ট্রং ও বাজ অলড্রিন যেখানে নেমেছিলেন ওই জায়গাটাও দেখতে পারবেন উপর থেকে।

 
নিজের স্বপ্নের দিকে এগিয়ে যাও আর একধাপ!

 

গুগল মার্স

চাঁদের মাটিতে ঘোরাঘুরি শেষে ঘুরতে পারেন মঙ্গলের উপরে। অবশ্য চাঁদের মত অত ছবি নেই এখানে। কিন্তু যা আছে তাও কম না। এখানে দেখা যাবে সৌরজগতের সবচেয়ে বড় আগ্নেয়গিরি অলিম্পাস মনস-কে যার ব্যাপ্তি প্রায় ৬৪৮ কিলোমিটার। কিংবা যে জায়গায় পানি পাওয়া গেছে সেখানটায়ও ঘুরে দেখতে পারেন। আজ পর্যন্ত আবিষ্কার হওয়া মঙ্গলের সকল অঞ্চল, গিরিখাত, আগ্নেয়গিরি ইত্যাদির সর্বশেষ তথ্য পাবেন এখানে। একেবারে মার্কিং পয়েন্ট সহকারে দেয়া থাকে বলে আপনার ভুল তথ্য পাবার সম্ভাবনা কম।

লিঙ্কগুলো এখানে দেয়া হল:

https://www.google.com/sky/

https://www.google.com/earth/

https://www.google.com/moon/

https://www.google.com/mars/

এই লেখাটির অডিওবুকটি পড়েছে তাহমিনা ইসলাম তামিমা


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: [email protected]