বিশ্বসেরা পাঁচ ব্লগসাইট: কাজে লাগবে আপনারও!

An enthusiast doodling with a piano in canvases

পুরোটা পড়ার সময় নেই? ব্লগটি একবার শুনে নাও।

ছবিঃInnoMatNet

টেকনোরাটির নাম শুনেছো?

এটি হচ্ছে একটি ব্লগ সার্চ ইঞ্জিন। ২০১৭ সালের জুন মাসে এই ব্লগ সার্চ ইঞ্জিন প্রায় বাইশ মিলিয়নের মতো ব্লগ খুঁজে বের করেছে!

দারুণ সব লেখা পড়তে ও নানা বিষয় সম্পর্কে জানতে ঘুরে এসো আমাদের ব্লগের নতুন পেইজ থেকে! The 10-Minute Blog!

তো টেকনোরাটির উপর বিশ্বাস রেখে আমরা বলতে পারি, আমাদের দৈনন্দিন জীবনের প্রায় প্রতিটি বিষয় নিয়ে চিন্তাভাবনা করে মাথা খাটিয়ে ব্লগ তৈরি করেন, এমন লোকের সংখ্যা আমাদের ধারণার বাইরে।


GIF: ken chitwood

“এই যে ব্লগের এতো ছড়াছড়ি, আসলে ব্লগের আক্ষরিক অর্থটা কি?” 


GIF: GifImage.net

 “ব্লগ, ব্লগার, ব্লগসাইট” কী: 

 ১৯৯৭ সালে ব্লগ শব্দটি প্রথম আসে ওয়েবব্লগ শব্দটির লেজ ধরে। আর ওয়েবব্লগ শব্দটির জন্মদাতা হলেন জন বার্গার। ১৯৯৯ সালে পিটার মেরহোলজ নামের এক ব্লগার স্রেফ রসিকতা করে তাঁর ওয়েবসাইট  পিটার্ম ডট কমে ব্লগ শব্দটি ব্যবহার করেন। সেই থেকে ব্লগ শব্দটি দুনিয়া দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

ব্লগ সাইট হচ্ছে  প্রতিনিয়ত আপডেটেড একটি ওয়েবসাইট অথবা ওয়েবপেইজ যেখানে বিভিন্ন বিষয়কে কেন্দ্র করে ইনফরমেটিভ অথবা কনভারসেশনাল স্টাইলে কোনো কন্টেন্ট আমাদের সামনে উপস্থাপন করা হয়ে থাকে। অধিকাংশ ব্লগই টেক্সট-বেসড বা লেখার উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়। এইসব সাইটে যারা লেখালেখি করেন তাদের বলা হয়ে থাকে ব্লগার। জাস্টিন হল হচ্ছেন দুনিয়ার সবচেয়ে পুরনো ব্লগার। কলেজে পড়ার সময় ১৯৯৪ সালে থেকেই তিনি অনলাইনে লেখালেখি শুরু করেন।  

লেখালেখির ব্লগ ছাড়াও রয়েছে ফটো ব্লগ, আর্ট ব্লগ, ভিডিও ব্লগ, এমপিথ্রি ব্লগ বা মিউজিক ব্লগ থেকে শুরু করে অডিও ব্লগ সহ আরও অনেক রকমের ব্লগ। সমসাময়িক বিষয় যেমন রাজনিতি, অর্থনীতি কিংবা আপকামিং টেকনোলোজির সুফল-কুফল থেকে শুরু করে কিভাবে সি.ভি লিখতে হয় অথবা কিভাবে নিজেকে আরও একটু বেশি সুস্থ রাখা যায়- এমন অগণিত বিষয় সম্পর্কে ধারণা দিতে প্রায় ২২ মিলিয়ন ব্লগসাইট আমাদের জন্য তাঁদের অসাধারণ সব কন্টেন্ট নিয়ে প্রতিনিয়ত হাজির থাকে। ব্লগের কন্টেন্ট থেকে প্রাপ্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে তোমার রিভিউ চাইলেই তুমি কমেন্ট সেকশনে জুড়ে দিতে পারো।  

এই অসাধারণ সুযোগটি ১৯৯৮ সালে আমাদের সামনে নিয়ে আসে ওপেন ডায়েরি নামের একটি ব্লগসাইট।

ব্লগ, ব্লগার আর ব্লগসাইট নিয়ে আশা করি আর কোনো সন্দেহ থাকার কথা না। আমার আজকের ব্লগের আসল টার্গেট হচ্ছে বিশ্বের সেরা ৫ টি ব্লগ সাইটের সাথে তোমাকে পরিচয় করিয়ে দেয়া। চলো শুরু করা যাক ।                                                                                                                                                                                                                            

বিজনেস ইনসাইডার (BUSINESS INSIDER):

ডিজিটাল এডভারটাইজিং এর কোন ট্রেন্ডগুলো অনুসরণ করলে  তুমি বেশি সাড়া পাবে বলতে পারো?

কিংবা ধরো তোমার পারফর্মেন্সের সময় কোন ট্রিকস গুলো  শুরু থেকেই তোমার  অডিয়েন্সের মনোযোগ ধরে রাখবে সেই ব্যাপারে তুমি জানতে চাও। ডিজিটাল ডিজিটাল এডভারটাইজিং কিংবা পারফর্মেন্স হ্যাক থেকে শুরু করে বিশ্ব রাজনীতি আর ফিন্যান্সের যতসব খুঁটিনাটি বিষয় সম্পর্কে আপডেটেড জ্ঞান রাখতে চাইলে তোমার জন্য রয়েছে বিজনেজ ইনসাইডার নামের ব্লগটি। এখানকার কন্টেন্ট গুলো টেকনোলোজি, পলিটিক্স, ফিন্যান্স, স্ট্রাট্যাজি আর দৈনন্দিন লাইফ  স্টাইল নিয়ে তোমাকে বিস্তর ধারনা দিতে পারবে।      

২০০৯ সালে যাত্রা শুরু করা বিজনেস ইনসাইডার ব্লগ সাইট  মূলত বিজনেসের যাবতীয় খুঁটিনাটি বিষয়ের চুলচেরা ফাইনেনশিয়াল বিশ্লেষণ করে থাকে। এই বিষয়টি তাঁদের মূল ফোকাস হলেও টেকনোলোজি,  ইন্টেলিজেন্স কিংবা অন্যান্য বিষয়গুলো সম্পর্কেও তাঁদের রয়েছে  অ্যানালাইটিক্যাল ব্লগ । এই সাইটের টপিকগুলো  এতোটাই ডাইভার্স যে, ম্যাকডোনাল্ড  কেনো আরটিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের পেছনে ৩০০ মিলিয়ন ডলার খরচ করছে সেই সম্পর্কে বিস্তর জ্ঞান লাভ করার পাশাপাশি তুমি জানতে পারবে তোমার কোন অভ্যাসগুলো বলে দেয় যে  তোমার প্রফেশনাল দিকটায় তুমি একেবারেই আনপ্রফেশনাল!        

এবার তাহলে ব্লগ সাইটটি একটু ঘুরে দেখা যাক?

লিঙ্কঃ https://www.businessinsider.com           

ব্লগ সাইটটি একটু নাড়াচাড়া করলেই তুমি বুঝতে পারবে বিজনেস ইনসাইডার তাঁর টার্গেট রিডারদের চাহিদা সম্পর্কে বেশ সচেতন!      

ফ্রেইস ব্লগ ( phrasee):        

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স আর মার্কেটিং বিষয়ক যাবতীয় সব পরামর্শ  তুমি এই ব্লগ সাইটে খুঁজে পাবে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর পাশাপাশি মেশিন লার্নিং, ইমেইল মার্কেটিং সম্পর্কেও এই সাইটের ব্লগগুলোতে বিস্তর আলোচনা করা হয়ে থাকে। ২০১৭ সালে সাইটটি অর্জন করেছে ইউকে ব্লগ এ্যাওয়ার্ড। জনপ্রিয়তার স্কেলে খুব বেশি এগিয়ে না থাকলেও  ধরে নেয়া হয় ব্লগের দুনিয়ায় এটি হতে যাচ্ছে “ওয়ান অব দ্যা নেক্সট বিগ থিংস!”

ব্লগের লেখাগুলোর ধরন দেখতে চাইলে এক্ষুনি চলে যাও এই লিঙ্কটিতেঃ

লিঙ্কঃ   https://phrasee.co/resources/blog/page/31/ 

গিজমোডো (Gizmodo):  

 ২০০২ সালে যাত্রা শুরু করা গিজমোডোতে সাইন্সের জটিল সব বিষয় নিয়ে অ্যানালাইটিকাল সব ব্লগ খুঁজে পাবে তুমি। কিন্তু ব্লগ সাইটটি কেবল সায়েন্সের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। স্মার্টওয়াচ , স্মার্টফোন,  ল্যাপটপ আর ট্যাবলেট, হেডফোন থেকে শুরু করে জুতা, ব্যাগ কিংবা ধরো বাচ্চাদের খেলনা- এমন অসংখ্য জিনিসের উপর অসাধারণ সব রিভিউ ব্লগ তুমি এই সাইটটিতে খুঁজে পাবে। এছাড়া আরও আছে টেক-ডিজাইনিং নিয়ে অনেকগুলো ব্লগ  যেখানে বিভিন্ন টেকনোলোজির ডিজাইনিংকে ফোকাস করে রিডারদের জন্য কন্টেন্ট তৈরি করা হয়।    

MUN এর খুঁটিনাটি শিখে ফেল এই ছুটিতে!

 

আমার কাছে মনে হয় গিজমোডো ব্লগ সাইটের সব চেয়ে আকর্ষণীয় বিষয়টি হচ্ছে  এর  Paleofuture সম্পর্কিত ব্লগ। Paleofuture হচ্ছে  এক ধরনের ব্লগ যেখানে ঐতিহাসিক সব চিন্তা ধারা কিংবা ভিসন আর ভবিষ্যৎ সম্পর্কে প্রেডিকশনকে ফোকাস করে কন্টেন্ট তৈরি করা হয়।

 উপরের ছবিটিতে  পেলিওফিউচার সম্পর্কিত কিছু ব্লগ সম্পর্কে ধারনা দেয়ার চেষ্টা করলাম। এক কাজ করো, তুমি নিজেই ব্লগটিতে ঘুরে আসো!

লিঙ্কঃ  https://gizmodo.com 

WIRED! :  

WIRED ব্লগ সাইটটি কিন্তু মোটেও wired না !

                                         ছবিঃ Wired, Wired UK and iClarified

ব্লগ সাইটটি  জনপ্রিয় সব টেকনোলোজি আর সমসাময়িক কালচারের উপর এর প্রভাব নিয়ে কন্টেন্ট তৈরি করে থাকে।  এছাড়াও অর্থনীতি আর রাজনিতি নিয়েও সাইটটিতে রয়েছে অসাধারণ সব ব্লগ। ব্লগ সাইটটির সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে এর ব্লগগুলো বর্তমান আর ভবিষ্যতের সব টেকনোলোজির ট্রেন্ড নিয়ে অ্যানালাইটিক্যাল ব্লগ প্রকাশ করে থাকে।  


ছবিঃ www.wired.com 

 বিজনেস থেকে শুরু করে কালচার আর নানা রকমের ফিউচার-রিলেটেড বৈজ্ঞানিক চিন্তা ধারা- সব কিছুর এক অসাধারণ সমাহার হচ্ছে এই WIRED BLOG!


ছবিঃ Grammarly

গ্রামারলি ব্লগ (grammerly blog): 

ধরো তুমি একটা প্রেসেন্টেশন রেডি করতে চাও কিন্তু কিভাবে শুরু করবে, পুরো প্রেসেন্টেশন কিভাবে সাজাবে সেটি বুঝে উঠতে পারছোনা। কিংবা ধরো তুমি কোনো টপিক নিয়ে একটি ব্লগ লিখতে চাও কিন্তু ব্লগ লেখার পদ্ধতিটা তোমার একেবারেই জানা নেই। দৈনন্দিন জীবনের এমন অসংখ্য “how to” প্রশ্ন নিয়ে অসাধারণ সব ব্লগ রয়েছে গ্রামারলি ব্লগ সাইটটিতে। সাইটটির “how to” সেকশনে গেলে তুমি কিভাবে প্রেসেন্টেশন রেডি করতে হয় কিংবা কিভাবে ব্লগ লিখতে হয়- এসব  ছাড়াও আরও হাজারটা কাজ কিভাবে করতে হয় সেই সম্পর্কে অসাধারণ সব ব্লগ খুঁজে পাবে।

“How to” সেকশন ছাড়াও এখানে আরও আছে ট্রেন্ড সেকশন যেখানে তুমি জানতে পারবে বাইলিঙ্গুয়াল হওয়ার হাজারটা অ্যাডভান্টেজ সহ আরও অনেক কিছু।  গ্রামারলি ব্লগের ইন্সপাইরেশন সেকশন তোমাকে বলে দেবে তোমার কোন ৫টি অভ্যাস তোমাকে “নেগেটিভ” হিসেবে গড়ে তুলছে কিংবা তোমার প্রোডাক্টিভিটি বাড়িয়ে তোলার জন্য কোন কাজগুলো তোমার এক্ষুনি শুরু করা উচিত। এছাড়াও বাড়তি পাওনা হিসেবে আছে  গ্রামারলি ব্লগের গ্রামার টিপস সেকশন যেখানে ইংলিশ গ্রামারের যাবতীয় খুঁটিনাটি বিষয়কে সহজ করে তুলে ধরা হয়েছে।

মোট কথা, গ্রামারলি ব্লগটি হচ্ছে আগা গোঁড়া একটি শিক্ষামূলক ব্লগ যেখানে দৈনন্দিন জীবনের প্রায় সব বিষয় সম্পর্কে তুমি সাবলীল ভাবে শিখতে পারবে।

 গ্রামারলি ব্লগ থেকে এক্ষুনি শেখা শুরু করে দিতে পারো চাইলে!  

লিঙ্কঃ https://www.grammarly.com/blog/ 

উপরের উল্লেখিত ব্লগ সাইট গুলো ছাড়াও অনলাইন দুনিয়ায় আরও অসাধারণ সব ব্লগ সাইট রয়েছে যেমন The Verge নামের ব্লগসাইটটি টেকনোলোজি নিয়ে বিস্তর গবেষণা করে থাকে। টেকনোলোজিক্যাল পরিবর্তন আমাদের ভবিষ্যৎ জীবনকে কিভাবে পরিবর্তন করে দিতে পারে সেই বিষয়টি নিয়েই তাঁদের অ্যানালাইটিক্যাল সব কন্টেন্ট।  

টেকনোলোজি নিয়ে আগ্রহ থাকলে সাইটটিতে ঘুরে আসতে পারো।

লিঙ্কঃ  https://www.theverge.com 

এছাড়াও আরও আছে lifehacker ( https://lifehacker.com ),  হেলথের জন্য Harvard Health Blog

(https://www.health.harvard.edu/blog/),বীট কয়েন কিংবা ক্রিপ্টোকারেন্সির জন্য CCN (https://www.ccn.com) সহ অসাধারণ সব ব্লগসাইট। আরও ব্লগ সাইট সম্পর্কে জানতে চাইলে এই লিঙ্কটিতে চলে যাওঃ  

লিঙ্কঃ https://detailed.com/50/ 

ব্লগ সাইট থেকে কি আয় করা যায় ?

গিজমোডো ব্লগ সাইটের মাসিক আয় প্রায় ৩ লাখ ২৫ হাজার ডলার। তাঁর মানে দাঁড়াচ্ছে ব্লগসাইট থেকে ভালো পরিমানে আয় করা যায়। ব্লগের অ্যাড ভারটাইজমেন্ট, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, আর কন্টেন্ট আর মনিটাইজেশন ঠিকঠাক মতো থাকলে ব্লগসাইট থেকে একজন ব্লগার ভালো আয় করতে পারে। ব্লগ সাইট থেকে কিভাবে আয় করা যায় সেই ব্যাপারে অন্য কোনো ব্লগে বিস্তারিত বলবো।

এতো কথা বলতে গিয়ে তোমার জন্য সেরা ব্লগসাইটটির কথা বলতেই ভুলে গেলাম।

  দ্যা টেন মিনিট স্কুল ব্লগ তোমার জন্য পড়াশোনার টিপস, ভর্তি পরীক্ষার টিপস, অনেক রকমের স্কিল ডেভেলপমেন্ট আর লাইফ  হ্যাকস থেকে শুরু করে প্রেরনামুলক অসংখ্য ব্লগ নিয়ে রেডি আছে।

ওয়ান অব দ্যা বেস্ট অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্মস থেকে শিখতে চাইলে এক্ষুনি ডুব দিয়ে দাও দ্য টেন মিনিট স্কুল ব্লগে!  হ্যাপি লার্নিং! 

Link: http://testhome.10minuteschool.com/blog/ 


১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: write@10minuteschool.com

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?